প্রচ্ছদ

বিমান বন্দরে নেমেই ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি গ্রেফতার

১০ জানুয়ারি ২০১৬, ১৮:১২

Sundaysylhet.com

চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে খুনের মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত এক আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
রোববার সকালে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-৭) আশরাফ হোসেন নামের ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে।
নগরীর পাঁচলাইশ এলাকার কাসেম চৌধুরীর ছেলে আশরাফ ২০০৪ সালে চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলায় এক বীমা কর্মকর্তাকে হত্যা মামলার দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি।
র‌্যাব-৭ এর চান্দগাঁও ক্যাম্পের অধিনায়ক স্কোয়াড্রন লিডার শাফায়েত জামিল ফাহিম বলেন, ‘ঢাকা থেকে একটি ফ্লাইটে হত্যা মামলায় ফাঁসির দণ্ড পাওয়া একজন আসামি আসছেন খবর পেয়ে আমরা অবস্থান নিই। সকাল ১০ টার দিকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।  তিনি দীর্ঘদিন পলাতক ছিলেন।’

জেলা পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, ২০০৪ সালের ২ এপ্রিল ফটিকছড়ির কারবালা টিলায় গোল্ডেন লাইফ ইন্সুরেন্সের ফটিকছড়ি ব্রাঞ্চের সিনিয়র অফিসার নূর খালেক মাস্টারকে ছুরিকাঘাতে খুন করা হয়। খুনের পর তদন্তে বেরিয়ে আসে, আশরাফ হোসেন ও গোলাম মোস্তফা কালু নামের দুই কর্মকর্তা ওই বীমা কোম্পানিতে চাকরি করতেন। চাকরীর সময়েকালে তাদের দুইজনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ উঠে।

তারা জানান, নূর খালেক মাস্টার ছিলেন তাদের দুর্নীতির অভিযোগের বিভাগীয় তদন্ত কর্মকর্তা। দুর্নীতির অভিযোগ প্রমাণ হওয়ায় আশরাফ হোসেন ও গোলাম মোস্তফা কালুকে বরখাস্ত করে কোম্পানিটি। এরই জেরে সহকর্মীকে খুন করেন আশরাফ।

এ ঘটনায় একই বছরের ২ আগস্ট নিহতের বাবা মো. দানেশ মিয়া বাদি হয়ে ফটিকছড়ি থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। ২ অক্টোবর এ ঘটনায় চার্জশিট দেওয়া হয়। চার্জ গঠন হয় ২০০৯ সালের ১৬ জুন।

২৭ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে ২০১৪ সালের ১৯ আগস্ট চট্টগ্রামের বিভাগীয় জননিরাপত্তা ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মমিন উল্লাহ আশরাফ হোসেনকে ফাঁসিতে ঝুঁলিয়ে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেন। এ মামলার অপর আসামি গোলাম মোস্তফা কালুকে বেকসুর খালাস দেন আদালত। রায়ের আগে থেকেই পলাতক ছিলেন আশরাফ।



সংবাদটি 620 বার পঠিত :::: সংবাদটি ভাল লাগলে লাইক বাটনে ক্লিক করুন
0Shares
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ