সিলেটে নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন: প্রশাসনের অভিযান-আটক ৮

প্রকাশিত: ৬:৫৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৬, ২০২০

সিলেটে নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন: প্রশাসনের অভিযান-আটক ৮

সানডেসিলেটঃ সিলেটে অবৈধ ও অপরিকল্পিতভাবে বালু উত্তোলনের ফলে নদী ভাঙনসহ সংশ্লিষ্ট এলাকার পরিবেশের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। কয়েকজন দুষ্কৃতকারী গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প সংলগ্ন এলাকায় এবং সরকারের বালুমহাল হিসেবে ঘোষিত নয়- এমন এলাকা থেকে ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করছেন। এছাড়া কোনো কোনো অনুমোদিত ইজারাদারও বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন-২০১০ অনুসরণ না করে বালু উত্তোলন করছেন। ফলে পরিবেশের ব্যাপক ক্ষতিসহ সংশ্লিষ্ট এলাকায় নদীভাঙন বৃদ্ধি পাচ্ছে ও গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা হুমকির সম্মুখীন হচ্ছে। সিলেট জেলার সদর উপজেলার অন্তর্গত চেঙ্গেরখাল নদীর বড়খাল নামকস্থান থেকে অবৈধ ও অপরিকল্পিতভাবে বালু উত্তোলনের ফলে ওই এলাকার নদী তীরবর্তী স্থানগুলোতে নদী ভাঙন শুরু হয়েছে। এ অবস্থায় আজ ১৬ নভেম্বর সকালে অবৈধ বালু উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযান পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) শবনম ফারিহা । অভিযান পরিচালনায় সহায়তা করেন জালালাবাদ থানার পুলিশের একটি চৌকস দল। এ সময় এলাকাবাসী ও পুলিশের সহযোগিতায় অবৈধ বালু উত্তোলনে ব্যবহৃত কয়েকটি বাল্কহেড ড্রেজারসহ বালু বহনকারী দুইটি কার্গো ট্রলার অপসারণ করা হয়। এছাড়াও অবৈধ বালু উত্তোলনের দায়ে ৮ জন ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয় এবং অভিযুক্ত প্রত্যেককে এক মাসের কারাদন্ড দেওয়া হয়। পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় ও অবৈধ বালু উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছে জেলা প্রশাসন।

স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘ দিন ধরে অবৈধ ভাবে মাটি বালু উত্তোলন করে আসছে মৌগল গাঁও গ্রামের মৃত বশির আলী দুই চেলে শামসুল ও লাল মিয়া,আমরা নদী থেকে অবৈধ ও অপরিকল্পিতভাবে বালু উত্তোলন বন্ধ ও নদী ভাঙন থেকে রক্ষা চাই। আজ রাত ৩টার দিকে মাটি তুলা শুরু করে আমরা ভোর ৫ঘটিকায় ৩ ওয়ার্ডের বাসিন্দারা একত্রিত হয়ে পুলিশের সহযোগিতায় বাল্কহেড ড্রেজারসহ বালু বহনকারী দুইটি কার্গো ট্রলার আটক করি। ট্রালারে কর্মরত ৮জন সদস্যের প্রত্যেককে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এক মাসের কারাদন্ড প্রদান করেন।

এ সময় উপস্হিত ছিলেন,বিশিষ্ট সালিশ ব্যাক্তিত্ব সামছু ইসলাম সুনাধন মাস্টার , সভাপতি কালারুকা মাদ্রাসা সরদার খান, ১নং জালালাবাদ ইউপি কমান্ডার বীর মুক্তিযুদ্ধা আশক আলি, তরুণ সমাজ সেবক ও শিক্ষানুরাগি সম্ভাব্য চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী উবায়দুল্লাহ ইসহাক, ৫ নং ওয়াড সদস্য শরীফ আলী, ৪নং ওয়াড সদস্য কমর আলী, ৬নং ওয়াড সদস্য মন্তাকা আহমদ, সাহেব সাবেক মেম্বার ইসলামুদ্দিন, ইসলাম গঞ্জ বাজার কমিটির সভাপতি বিলাল খান, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হক আলা, জুনাইদুল ইসলাম জুনেদ, মাস্টার আনোয়ার, মানিক মিয়া, মইন উদ্দিন নমই, মজম্মীল আলি , আব্দুল কাদিও, শফিক আলি , মন্নান মিয়া , শফিক মিয়া ,আমিনুল হক ,ইয়াছিন আলী, শুরুজ আলি, পাকি মিয়া,আবুল আলি, ইলিয়াছ আলি, ফয়জুল মহরিল, ফারুক আহমদ প্রমুখ।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ