সিলেটে ছাত্র জমিয়তের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর র‌্যালীতে পুলিশের বাঁধা

প্রকাশিত: ৬:৫৮ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৫, ২০২১

সিলেটে ছাত্র জমিয়তের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর র‌্যালীতে পুলিশের বাঁধা

 

সানডেসিলেট ডেস্কঃ ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশের ২৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সিলেট মহানগর শাখার উদ্যোগে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর র‌্যালিটি ধোপাদিঘীর পূর্ব পাড়স্থ শিশু পার্কের সামনে আসা মাত্র পুলিশ বাঁধা দেয়।

 

সোমবার (২৫ জানুয়ারি) দুপুর ২টায় নগরীর ধোপাদিঘীর পূর্ব পাড়স্থ শিশু পার্কের সামনে থেকে র‌্যালী শুরু হয়ে নাইওরপুল পয়েন্ট হয়ে শিশু পার্কের সামনে আসা মাত্র পুলিশ বাঁধা দেয়।পরে র‌্যালিটি সেখানেই শেষ করে সংগঠনটি সংক্ষিপ্ত পথসভা করে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠান শেষ করে।

 

মহানগর ছাত্র জমিয়তের সভাপতি মোহাম্মদ লুৎফুর রহমানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এমরান আহমদের পরিচালনায় র‌্যালী পরবর্তী সংক্ষিপ্ত পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সহ-সভাপতি সাবেক এমপি এডভোকেট শাহীনুর পাশা চৌধুরী।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশের সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম, ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মো. হোসাইন আহমদ, কলেজ ভার্সিটি বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল রাশেদ।

অন্যান্যর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিলেট মহানগর জমিয়তের সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজ সৈয়দ সালিম ক্বাসেমী, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা সদরুল আমিন, জেলা জমিয়তের প্রচার সম্পাদক মাওলানা সালেহ আহমদ শাহবাগী, মহানগর জমিয়তের সমাজসেবা সম্পাদক হাফিজ কবির আহমদ, যুব জমিয়তের কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মো. রুহুল আমিন নগরী, মহানগর যুব জমিয়তের সিনিয়র সহ-সভাপতি আসাদ উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজ আব্দুল করিম দিলদার, মুফতি সিরাজুল ইসলাম, মহানগর ছাত্র জমিয়তের সিনিয়র সহ সভাপতি হাফিজ শাহিদ আহমদ হাতিমী, সহ সভাপতি আবুল খয়ের, যুগ্ম সম্পাদক হাফিজ জাহেদ আহমদ, জেলার সহ সাধারণ সম্পাদক কাওসার আহমদ, প্রচার সম্পাদক আবু হানিফ সাদি, আবু বক্কর সিদ্দিক, অর্থ সম্পাদক নুরুল ইসলাম, নাজিম উদ্দিন নোমানী প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাবেক এমপি এডভোকেট শাহীনুর পাশা চৌধুরী বলেন, অত্যন্ত দুঃখজনক আজকে ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশের ২৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী দেশব্যাপী পালন করা হচ্ছে। অথচ অতি উৎসাহি পুলিশ প্রশাসন আমাদের শান্তিপূর্ণ র‌্যালীতে বাঁধা দিয়ে বাক স্বাধীনতা হরণ করেছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। একটি স্বাধীন দেশে এরকম শান্তি পূর্ণ কর্মসূচীতে বাঁধা সৃষ্টি করা আইনের পরিপন্থি।

 

প্রধান অতিথি আরও বলেন, ধর্ষক, চাঁদাবাজ, টেন্ডারবাজ ও নারী ইজ্জত হরণকারী অসুস্থ রাজনীতি পরিহার করে সবাইকে সুস্থ রাজনীতিতে ফিরে আসতে হবে। তিনি বলেন, এদেশে সুস্থ ও সুন্দর রাজনীতির মডেল হচ্ছে ছাত্র জমিয়ত। তিনি আপামর ছাত্র জনতাকে ছাত্র জমিয়তের ছায়াতলে শরিক হওয়ার আহবান জানান।

শাহিনুর পাশা আরো বলেন, আমরা বাংলাদেশের রাজনীতির নামে কোন ধর্ষক দেখতে চাই না। কোন চাঁদাবাজ দেখতে চাই না। আর কোন ইজ্জত হরণকারী নারীর আর্তচিৎকার  শুনতে চাই না। একটি সুন্দর ও স্বচ্ছ বাংলাদেশ দেখতে চাই আমরা।

 

 

 

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ