সিএনজি মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের জরুরি সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত: ৮:০২ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৩, ২০২০

সিএনজি মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের জরুরি সভা অনুষ্ঠিত

সিলেট জেলা সিএনজি চালিত অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন রেজি নং চট্ট ৭০৭ এর কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ৫ দফা দাবী আদায়ের লক্ষে সিলেট জেলা সিএনজি মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (২ ডিসেম্বর) বিকাল ২টায় সিলেট জেলা সিএনজি মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদ কার্যালয়ে উক্ত সভা অনুষ্ঠিত হয়।

 

সিএনজি চালিত অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন রেজি নং ৭০৭ এর সভাপতি জাকারিয়া আহমদের সভাপতিত্বে ও শ্রমিক নেতা সাহাব উদ্দিনের পরিচালনায় উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা সিএনজি চালিত অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন এর সাধারন সম্পাদক আজাদ মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক জনাব ইকবাল আহমদ, সিলেট জেলা অটোরিক্সা অটোটেম্পু ২০৯৭ এর সভাপতি খলিলুর রহমান, কার্যকরি সভাপতি মতছির আলী, মালিক সমিতির সভাপতি শাহ দিলওয়ার, কার্যকরি সভাপতি জামিল আহমদ, সাধারন সম্পাদক আনোয়ার হুসেন, শ্রমিক ইউনিয়ন রেজি নং ৭০৭ এর সহ-সভাপতি সুন্দর আলী খান, অর্থ সম্পাদক মামুনুর রশীদ মামুন, প্রচার সম্পাদক মোহাম্মদ আলী, সদস্য মো. আলতাফ হোসেন চৌধুরী, মো. মানিক মিয়া, মো. লিটন আহমদ, মো. সুজন মিয়া, এম. বরকত আলী, মফিজুল ইসলাম মিলন, মো. মুহিবুর রহমান এপল, মো. এমাদ উদ্দিন, শিবলি আহমদ, সোনা মিয়া, ছাব্বির হুসেন, জাবেদ আহমদ, এহিয়া আহমদ প্রমুখ।

এসময় সভাপতির বক্তব্যে জাকারিয়া আহমদ বলেন, আমাদের ৫ দফা দাবী আদায়ের জন্য প্রয়োজনে আমরা বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দেব। দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরা রাজপথ ছাড়ব না। তিনি বলেন, আমরা প্রায় দেখতে পাচ্ছি সিলেটের বুকে ঢাকা, চট্টগ্রাম থেকে আসা ডাম্পিংকৃত গাড়িগুলো অবাধে চলাফেলা করছে। অনবিলম্বে তাদের এই অবাধ চলাচল বন্ধ করতে হবে। ব্যাটারী চালিত রিক্সা, অটোবাইকও এখন সয়লাব হয়ে গেছে। এগুলো চলাচলে বাধা প্রদান করা হবে। সিএনজি অটোরিক্সার বিরুদ্ধে যত ষড়যন্ত্র করা হউক না কেন, তা কঠোর হাতে দমন করা হবে। তিনি সিএনজি অটো রিকশায় গ্রীল লাগানোর বিষয়ে প্রশাসনের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা আগে অবৈধভাবে বেটারিচালিত ইজিবাইকগুলোর অবাধ চলাফেরা বন্ধ করুন। তিনি বলেন, এখনোও আমাদের ৫ দফা দাবী বাস্তবায়নের কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। তার উপরে নতুন করে সিলেট মেট্রাপলিটন ট্রাফিক পুলিশ কর্তৃক গ্রীল লাগানোর মত কঠিন একটি বিষয় অটোরিকশা চালকদের উপর চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে। এতে করে সাধারণ শ্রমিকরা পরিবার পরিজন নিয়ে দুশ্চিন্তার মধ্যে রয়েছেন। সাধারণ শ্রমিকদের কথা বিবেচনা করে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে চালকদের ব্যাপারে সদয় হওয়ার জন্য আমরা অনুরোধ জানাচ্ছিন। এ অবস্থায় সিএনজি চালিত অটোরিক্সার ৪০ হাজার শ্রমিক আগামী ১৯ ও ২০ ডিসেম্বর ৪৮ ঘন্টার কর্মবিরতি পালন করার ডাক দিয়েছেন এবং খুব শীঘ্রই সামগ্রীক বিষয় তুলে ধরে সিলেটের জেলা প্রশাসক সহ বিভিন্ন দফতরে স্মারকলিপি প্রদান করবে সংগঠনটি। বিজ্ঞপ্তি

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ