স্পেশাল

যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফকীর আবদুর রাজ্জাকের মৃত্যুতে যুবলীগের শোক

প্রকাশিত: ১:৩০ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৮, ২০২০

যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফকীর আবদুর রাজ্জাকের মৃত্যুতে যুবলীগের শোক

সানডেসিলেট প্রতিবেদক:: বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, খ্যাতিমান সাংবাদিক-কলামিস্ট ও মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ফকীর আবদুর রাজ্জাকের মৃত্যুতে গভীর শোক ও সমবেদনা জানিয়েছে প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ।

মঙ্গলবার(২৭ অক্টোবর) এক যুক্ত বিবৃতিতে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ ও সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ মাইনুল হোসেন খান নিখিল মরহুমের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন এবং তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

উল্লেখ্য যে, খ্যাতিমান সাংবাদিক-কলামিস্ট ও মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক এবং রাজবাজকাড়ি জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার কৃতি সন্তান ফকীর আব্দুর রাজ্জাক গত ২৫শে অক্টোবর সন্ধ্যা ৭টার দিকে বালিয়াকান্দি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের দক্ষিণবাড়ী গ্রামের নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি দীর্ঘদিন যাবৎ বিভিন্ন জটিল রোগে ভুগছিলেন।

মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ২ ছেলে ও ১ মেয়েসহ আত্মীয়-স্বজন ও অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

১৯৭৮ সালে যুবলীগের দ্বিতীয় কংগ্রেসে আমির হোসেন আমু চেয়ারম্যান ও ফকির আব্দুর রাজ্জাক কে সাধারণ  সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়।

১৯৮১ সালে মহিউদ্দিন-রাজ্জাকের নেতৃত্বাধীন ‘পুনর্গঠিত বাকশাল’-এর কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক ছিলেন। ছাত্র জীবনে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শাহ্ মখদুল হলের ভিপি নির্বাচিত হন। মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় সংগঠকের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি নিজেও সরাসরি যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। ফজলুল হক মনি’র সাথে তাঁর গভীর রাজনৈতিক সম্পর্ক ছিল। অধুনালুপ্ত দৈনিক বাংলার বাণী পত্রিকা প্রকাশের শুরু থেকে দীর্ঘদিন যাবৎ তিনি তার সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন।

এছাড়াও আমৃত্যু দৈনিক সংবাদ, যুগান্তর, সমকালসহ দেশের শীর্ষস্থানীয় সংবাদপত্রগুলোতে কলাম লিখে গেছেন। তাঁর মৃত্যুতে রাজবাড়ীর বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ