মৌলভীবাজার পৌরসভার পৌরবর্জ্য নিক্ষেপের স্থান পরিদর্শন ও ক্ষোভ প্রকাশ বাপার

প্রকাশিত: ৮:২৩ অপরাহ্ণ, মে ২৪, ২০২১

মৌলভীবাজার পৌরসভার পৌরবর্জ্য নিক্ষেপের স্থান পরিদর্শন ও ক্ষোভ প্রকাশ বাপার

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ  মৌলভীবাজার পৌরসভার অন্তর্গত বর্ষিজোড়া ইকোপার্কে পৌর বর্জ্য নিক্ষেপের স্থান পরিদর্শন করেন বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)’র একটি প্রতিনিধিদল। বাপা কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সাধারণ সম্পাদক শরীফ জামিল এর নেতৃত্বে প্রতিনিধিদলে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাপা মৌলভীবাজার আঞ্চলিক শাখার সমন্বয়ক, এ এস এম সালেহ সোহেল, বাপা হবিগঞ্জ আঞ্চলিক শাখার সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল সোহেল ও বাপা সিলেট আঞ্চলিক শাখার সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম কিম প্রমূখ।

 

 

বাংলাদেশের সকল নগর ও পৌর এলাকার নাগরিক বর্জ্য ব্যবস্থাপনা অপরিকল্পিত ও ক্রটিপূর্ণ হওয়ায় প্রায় সকল এলাকার স্থানীয় পরিবেশ, প্রতিবেশ আজ চরমভাবে বিপর্যয়ের সম্মূখীন। বেশীরভাগ পৌর এলাকার বর্জ্য সংশ্লিষ্ট এলাকা সংলগ্ন গুরুত্বপূর্ণ নদী, খাল, জলাশয় কিংবা বনাঞ্চলে স্তুপাকারে রাখা হয় এবং সময়ে সময়ে তা আগুন দিয়ে জ্বালানোর প্রবনতা লক্ষ্য করা যায়।

 

পরিদর্শনকালে বাপা’র প্রতিনিধিদল দেখেন যে, মৌলভীবাজার পৌরসভার বর্জ্য ফেলার জন্য বেছে নেওয়া স্থান হচ্ছে ‘বর্ষিজোড়া ইকোপার্ক’ নামের একটি সংরক্ষিত বনাঞ্চল। যেখানে স্তুপিকৃত আবর্জনার অধিকাংশই প্লাষ্টিক ও পলিথিন বর্জ্য, যার একাংশে পরিদর্শনকালে আগুন জ্বলতে দেখা যায়।

 

উল্লেখ করা আবশ্যক যে, পলিথিন ও প্লাষ্টিক বর্জ্য পোড়ালে চরম ক্ষতিকর বায়ুদূষণের সৃষ্টি হয়; যা মৌলভীবাজার পৌরসভার জনগন ও সংরক্ষিত বনাঞ্চলের বন্য প্রাণীদের জন্য মারাত্নক স্বাস্থ্য ঝুঁকির কারণ। সংরক্ষিত বনাঞ্চলে পৌর বর্জ্য নিক্ষেপ শুধু আইনের প্রতি অশ্রদ্ধা বা জীববৈচিত্র্যের প্রতি হুমকিই নয় বরং জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবেলায় বাংলাদেশ সরকারের অঙ্গীকার ও গৃহীত পদক্ষেপসমূহের সাথে সাংঘর্ষিক।  তাই অবিলম্বে মৌলভীবাজার পৌরসভার বর্জ্য বর্ষিজোড়া ইকোপার্কে ফেলা বন্ধ করতে হবে এবং একই সাথে মৌলভীবাজার সহ দেশের সকল পৌর বর্জ্য সমন্বিত, বিজ্ঞানভিত্তিক ও অংশগ্রহণমূলক পরিকল্পনা প্রনয়ন ও বাস্তবায়নের উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ