স্পেশাল

ভাড়া নেওয়া যায় যে দ্বীপ

প্রকাশিত: ৯:৫৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২০

ভাড়া নেওয়া যায় যে দ্বীপ

সানডে অনলাইন ডেস্ক

গোটা দ্বীপে নিজের মতো সময় কাটানোর কথা অনেকেই হয়তো কল্পনা করেন। কিন্তু কল্পনার সেই দ্বীপে হয় মানুষের বসতি থাকে না অথবা বসতি থাকলেও থাকে না আধুনিক সুবিধা।

তবে অনেকের হয়তো জানা নেই, এমন এক দ্বীপ আছে যেখানে আধুনিক সুযোগ-সুবিধা নিয়েই ব্যক্তিগত সময় কাটানো যায়। সামর্থ্যবানরা চাইলে গোটা দ্বীপ ভাড়াও করতে পারেন পরিবার অথবা বন্ধুদের নিয়ে সময় কাটানোর জন্য। ব্যতিক্রমী এ দ্বীপের নাম কানু।

মধ্য আমেরিকার উত্তর-পূর্বে অংশে, ক্যারিবীয় সাগরের উপকূলে এর অবস্থান।

ব্যক্তিমালিকাধীন এ দ্বীপে আরামদায়কভাবে থাকার জন্য আধুনিক সব সুযোগ-সুবিধা রয়েছে। দৃষ্টিনন্দন এ দ্বীপে একবারে ১০ জন প্রাপ্তবয়স্ক এবং ১০ শিশু থাকতে পারেন।

বেলিজের প্লেসনিয়া উপকূল থেকে মাত্র ১৫ মিনিটের দূরে অবস্থিত কানু একটি অত্যাশ্চর্য প্রবাল দ্বীপ।

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর সাদা বালির এ দ্বীপে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বহু মানুষ ছুটি কাটাতে আসেন। আড়াই একর জায়গা জুড়ে ছড়িয়ে থাকা ব্যক্তিগত এ দ্বীপে এক হাজার বর্গফুট আয়তনের পাঁচটি বিলাসবহুল ভিলা রয়েছে। এখানে অবকাশ যাপনের জন্য খেলা কিংবা নৌকায় ঘোরাঘুরির ব্যবস্থা্ও রেখেছে কর্তৃপক্ষ।

তবে চাইলেই সবাই যেতে পারবেন না এ দ্বীপে। কারণ এখানকার খরচটা তুলনামুলকভাবে বেশি। কানুর ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী, এ দ্বীপে আট জন লোকের এক সপ্তাহের জন্য প্রতি রাতে খরচ পড়বে ২৯ হাজার ৫০০ ডলার। সে হিসেবে একরাতের জন্য একজনের খরচ পড়ে ৫০০ ডলার। আর যদি লোকের সংখ্যা আট ছাড়িয়ে যায়, তবে প্রতি রাতে প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য অতিরিক্ত ১৭৫ ডলার দিতে হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ

ই-মেইল :Sundaysylhet@Gmail.Com
মোবাইল : ০১৭১১-৩৩৪২৪৩ / ০১৭৪০-৯১৫৪৫২ / ০১৭৪২-৩৪৬২৪৪
Designed by ওয়েব হোম বিডি