বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে ৪দিন ধরে প্রেমিকার অনশন

প্রকাশিত: ৪:১৩ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২০

বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে ৪দিন ধরে প্রেমিকার অনশন
তাহিরপুর প্রতিনিধি : বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ : তাহিরপুর উপজেলার পল্লীতে বিয়ের দাবি নিয়ে হতদরিদ্র পরিবারের এক তরুণী গত ৪ দিন ধরে প্রেমিক মুক্তার মিয়া (আকাশের) বাড়িতে অনশন করছে। প্রেমিক মুক্তার মিয়া উপজেলার শ্রীপুর (উঃ) ইউনিয়নের তেলীগাঁও গ্রামের ঠাকুরহাটির উসমান মিয়ার ছেলে। আর এদিকে প্রেমিকের বাড়িতে তরুণীর অনশনের খবর পেয়ে প্রেমিক মুক্তার মিয়া বাড়ি ছেড়ে আত্মগোপনে রয়েছে। ভিকটিম সূত্রে জানা যায়, প্রায় ২ বছর আগে হতদরিদ্র পরিবারের ঐ তরুণীর সহিত মুক্তার মিয়া (আকাশের) প্রথমে পরিচয় হয়। পরবর্তী সময়ে পরিচয় থেকে একে অপরের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এর মধ্যে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রেমিক মুক্তার মিয়া তার সঙ্গে শারিরিকভাবেও ঘনিষ্ঠ হয় হয় বলে জানিয়েছে তরুণীর পরিবার।
গত ১৯ই ফেব্রুয়ারি তরং হযরত শাহ ক্বারী নুরালী শাহ (র) ওরশের রাতে প্রেমিক মুক্তার মিয়া তরুণীর ঘরে  প্রবেশ করে দেখা করার সময় তরুণীর মা-বাবা তাকে হাতেনাতে আটক করেন। এক পর্যায়ে প্রেমিক মুক্তার মিয়া বিয়ে করার আশ্বাস দিয়ে তখনকার মতো চলে আসেন। এ ঘটনার পর থেকে তরুণীকে এড়িয়ে চলতে থাকে সে। এক পর্যায়ে ভুক্তভোগী তরুনী কোন উপায়ান্তর না পেয়ে বিয়ের দাবি নিয়ে প্রেমিক মুক্তার মিয়া বাড়িতে গত সোমবার থেকে অনশন শুরু করে। অনশনের তিনদিন পরও তাকে স্ত্রীর স্বীকৃতি না দিয়ে প্রেমিক মুক্তার মিয়ার পরিবারের লোকজন তরুনীকে শারিরীকভাবে নির্যাতন করেছে বলেও  অভিযোগ করেছেন তরুণীর পরিবারের লোকজন।
তরুণীর মা জানান, আমরা গরিব মানুষ, দিন আনি, দিন খাই। গত সোমবার সকালে কাজের সন্ধানে আমরা অনত্র চলে যাই। বিকালে বাড়ি এসে দেখি আমার মেয়ে ঘরে নেই। পরে খোঁজ নিয়ে জানতে পারি মেয়ে মুক্তার মিয়ার বাড়িতে বিয়ের দাবি নিয়ে অবস্থান করছে। তিনি আরো বলেন, তারা প্রভাবশালী হওয়ায় আমার মেয়েটাকে স্ত্রীর স্বীকৃতি না দিয়ে মারপিট ও নির্যাতন করছে। ভিকটিমের বাবা বলেন, মুক্তারের বড় ভাই এরশাদ সর্দার বারবার পুলিশের ভয় দেখাচ্ছে এবং টাকা দিয়ে বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করছে। তিনি আরো বলেন, ইজ্জতের মূল্যতো আর টাকা দিতে পূরণ হয়না। শ্রীপুর(উ.) ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য নুরুল আমিন জানান, গত সোমবার থেকে এক তরুণী মুক্তারের বাবা উসমান মিয়ার বাড়ীতে বিয়ের দাবীতে অবস্থান করছে। ঘটনাটি উভয় পক্ষকে সামাজিক ভাবে শেষ করার জন্য বলা হয়েছে।
তাহিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আতিকুর রহমান জানান, ঘটনার খবর পেয়ে এস আই জহুর লালকে ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে। ভিকটিমের পরিবার থেকে এ ব্যাপারে এখ নপর্যন্ত কোন অভিযোগ দেয়া হয়নী। অভিযোগ দেয়া হলে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ

ই-মেইল :Sundaysylhet@Gmail.Com
মোবাইল : ০১৭১১-৩৩৪২৪৩ / ০১৭৪০-৯১৫৪৫২ / ০১৭৪২-৩৪৬২৪৪
Designed by ওয়েব হোম বিডি