বালাগঞ্জে শেখ হাসিনা সেতুর কাজ বন্ধ; উপজেলাবাসীর মধ্যে হতাশা

প্রকাশিত: ৮:৩২ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৮, ২০২১

বালাগঞ্জে শেখ হাসিনা সেতুর কাজ বন্ধ; উপজেলাবাসীর মধ্যে হতাশা

সানডেসিলেট ডেস্কঃ সিলেট-সুলতানপুর-বালাগঞ্জ সড়কের সর্বশেষ প্রান্তে বড়ভাঙ্গা নদীর অবস্থান।  উপজেলা সদরের সাথে সংযুক্ত হওয়ার একমাত্র মাধ্যম সেতু। কিন্তু এই বড়ভাঙ্গা নদীতে কোনো সেতু না থাকায় উপজেলা সদরের সাথেসরাসরি যাতায়াত বিচ্ছিন্ন বালাগঞ্জের ৩টি ইউনিয়নের জনসাধারণের। সেতু না থাকার কারণে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে  এই অঞ্চলে বসবাসকারী জনসাধারণকে। নির্মাণ কাজ বন্ধ থাকায় উপজেলাবাসীর মধ্যে তীব্র হতাশা বিরাজ করছে। এলাকাবাসী ইতোমধ্যে আন্দোলনের প্রস্তুতি গ্রহণ করছেন।

 

কোন দূর্ঘটনা ঘটলে ও জরুরী সেবা প্রদানের জন্য বালাগঞ্জ থানা পুলিশও উপজেলার পশ্চিম গৌরীপুর ও দেওয়ানবাজার ইউনিয়নে সরাসরি গাড়ি নিয়ে যাতায়াত করতে পারে না। এছাড়াও উপজেলা প্রশাসন, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে, স্কুল-কলেজ, মাদরাসার শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন দপ্তরে যাতায়াতেও দেখা দিয়েছে চরম দূর্ভোগ।

 

এ দুটি ইউনিয়নে বড়ভাঙ্গা নদীপথে যেতে নৌকা এবং গাড়ি নিয়ে যেতে হলে পার্শ্ববর্তী ওসমানীনগর উপজেলার উসমানপুর ইউনিয়ন হয়ে দেওয়ানবাজার ও ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার উত্তর কুশিয়ারা ইউনিয়ন হয়ে পশ্চিম গৌরীপুরে পৌঁছাতে হয়। এতে যেমন ব্যয় হয় সময়ের, তেমনি ব্যয় হয় অর্থের। এই বড়ভাঙ্গা নদীই দুইভাগে বিভক্ত করে রেখেছে বালাগঞ্জ সদর ইউনিয়নকে।

 

 

বালাগঞ্জ-সুলতানপুর-সিলেট সড়কের বড়ভাঙ্গা নদীর উপর  নির্মিত ‘শেখ হাসিনা সেতুটি বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের অর্থায়নে প্রকল্প ব্যয় ধরা হয়েছিল ২কোটি ৬৭লাখ টাকা।

প্রায় ১শ মিটার দৈর্ঘ্য এবং ৪মিটার প্রস্থ ‘শেখ হাসিনা সেতু’ নির্মাণের জন্য ২০১৮ সালের ১৮এপ্রিল উপজেলা সদরের স্থানীয় ডাকবাংলো প্রাঙ্গণে ‘শেখ হাসিনা সেতু’ এর ভিত্তিস্থাপনের ফলক উন্মোচন করেন সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী এবং সিলেট-২ আসনের সংসদ সদস্য ইয়াহইয়া চৌধুরী এহিয়া। কিন্তু কোনো এক অদৃশ্য কারণে আটকে যায় সেতুটির নির্মাণ কাজ।

 

দীর্ঘদিন যাবত সেতুটির নির্মাণ কাজ বন্ধ থাকায়  দূর্ভোগ চরম সীমায় পৌঁছে যাওয়ায় বালাগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের ৪ ও ৩ ওয়ার্ডের বিভিন্ন স্থরের জনসাধারণ গত সোমবার(২৫ জানুয়ারি) রাতে স্থানীয় আয়না মার্কেট এক সভা করে। সভায় ‘শেখ হাসিনা সেতু’ বাস্তবায়নে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে স্মারকলিপি, উপজেলা সদরে সকল পর্যায়ের লোকজনের উপস্থিতিতে মানববন্ধন, সংবাদ সম্মেলনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণের ঘোষণা দেয়া হয়েছে।

 

বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইসচেয়ারম্যান সামস্ উদ্দিন সামস্ বলেন, বড়ভাঙ্গা নদীতে পাকা সেতু না থাকায় উপজেলা সদরের সাথে তিন ইউনিয়ের মানুষের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন। সেতুটির কাজ বন্ধ হওয়াতে জনগণের মধ্যে হতাশা। তাই দ্রুত  মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নামে নির্মিত সেতুটির কাজ দ্রুত সম্পন্ন করতে সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি জোর দাবী জানিয়েছেন।

 

এ বিষয়ে বালাগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী এস আর এম জি কিবরিয়া বলেন, সেতুটির রি-ডিজাইন করতে হবে। আগের ডিজাইন সেতুটি নির্মানের জন্য উপযুক্ত নয়। আগের সম্পূর্ণ কাজ বাতিল করে সবকিছু নতুন করে শুরু করতে হবে। পাশাপাশি এটি বাস্তবায়নে আরও বাজেটের প্রয়োজন।

 

এ ব্যাপারে আলাপকালে বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাকুর রহমান মফুর বলেন, কারিগরি সমস্যার কারণে সেতুর কাজ হচ্ছে না।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ