স্পেশাল

কাঙ্খিত স্তর অতিক্রম করতে আর ৯৭ পয়েন্ট! ছয় বছরের সর্বোচ্চ

প্রকাশিত: ৫:৩২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৬, ২০১৭

কাঙ্খিত স্তর অতিক্রম করতে আর ৯৭ পয়েন্ট! ছয় বছরের সর্বোচ্চ

সানডে সিলেট রবিবার, ০৬ আগস্ট ২০১৭ : বহুদিন ধরেই সূচক ছয় হাজারের কাছাকাছি গিয়েও ফিরে আসছে। আর মাত্র ৯৭ পয়েন্ট সূচক বাড়লেই কাঙ্খিত স্তর অতিক্রম করবে পুঁজিবাজার।

২০১১ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর ডিএসই’র সাধারণ সূচক ছিল ৫ হাজার ৯৬৬ পয়েন্ট। তারপর থেকে এ পর্যন্ত সূচক এতোদূর যায়নি। আজই সূচক ৫ হাজার ৯০৭ পয়েন্ট হওয়ায় তা বিগত ছয় বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ অবস্থানে রয়েছে।

সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে দেশের উভয় শেয়ারবাজারে সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় শেষ হয়েছে লেনদেন। এদিন শুরুতে উত্থান-পতন থাকলেও ১ ঘন্টা ১০ মিনিট পর ক্রয় প্রেসারে টানা বাড়তে থাকে সূচক। রোববার সূচকের পাশাপাশি বেড়েছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর। তবে টাকার অংকে লেনদেন আগের দিনের তুলনায় কিছুটা কমেছে। আজ দিন শেষে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৯১৯ কোটি টাকা।

দিনশেষে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ২৭ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৫৯০৭ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ১ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১৩১৩ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৬ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ২১৩০ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৩২টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৫৩টির, কমেছে ১৪৬টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৩টি কোম্পানির শেয়ার দর। যা টাকায় লেনদেন হয়েছে ৯১৯ কোটি ৩২ লাখ ২ হাজার টাকা।

এর আগে মঙ্গলবার ডিএসই ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ১০ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৫৮৮০ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ১৩১১ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৮ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ২১২৩ পয়েন্টে। ওইদিন লেনদেন হয় ১ হাজার ৭৭ কোটি ৯৯ লাখ ৮৪ হাজার টাকা। সে হিসেবে আজ ডিএসইতে লেনদেন কমেছে ১৫৮ কোটি ৬৭ লাখ ৮২ হাজার টাকা।

এদিকে দিনশেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) ব্রড ইনডেক্স ৫১ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১১ হাজার ৬৪ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২৫৫টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১২২টির, কমেছে ১০২টির ও দর অপরিবর্তিত রয়েছে ৩১টির। যা টাকায় লেনদেন হয়েছে ৬৩ কোটি ৫৯ লাখ ৮৯ হাজার টাকা।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ