অতীত দিনের সিলেট গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন

প্রকাশিত: ৭:৫৭ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৫, ২০২০

অতীত দিনের সিলেট গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন

বিশিষ্ট সাংবাদিক, ঐতিহ্য ও শেকড়সন্ধানী লেখক, গবেষক কবি নিজাম উদ্দীন সালেহ রচিত ‘অতীত দিনের সিলেট’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন গতকাল ১৫ ডিসেম্বর বেলা আড়াইটায় দৈনিক জালালাবাদ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়।

জালালাবাদ সম্পাদক মুকতাবিস-উন-নূর-এর সভাপতিত্বে মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী, সাধারণ সম্পাদক আবদুর রশীদ রেনু, প্রবীণ সাংবাদিক কলামিস্ট আফতাব চৌধুরী, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এডভোকেট এমাদুল্লাহ শহীদুল ইসলাম, প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ইকরামুল কবির, সাবেক সহ সভাপতি আমজাদ হেসেন, প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সমরেন্দ্র বিশ^াস সমর, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইকবাল মাহমুদ, দৈনিক জালালাবাদের সহকারী সম্পাদক সারওয়ার চৌধুরী, আমার দেশ পত্রিকার সাবেক ব্যুরো প্রধান খালেদ আহমদ, সাংবাদিক চৌধুরী দেলওয়ার হোসেন জিলন, সিলেটের ডাকের সিনিয়র রিপোর্টার কাওসার চৌধুরী, কবি এডভোকেট কামাল তৈয়ব ও প্রাবন্ধিক জাহেদুর রহমান চৌধুরী।

অনুভুতি ব্যক্ত করেন গ্রন্থের লেখক কবি নিজাম উদ্দীন সালেহ এবং স্বাগত বক্তব্য রাখেন পান্ডুলিপি প্রকাশন-এর স্বত্ত¡াধিকারী বায়েজীদ মাহমুদ ফয়সল।

দৈনিক জালালাবাদের স্টাফ ফটোগ্রাফার হুমায়ুন কবির লিটনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন ক্বারী মুহাম্মদ আব্দুল বাছিত। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর নাজনীন আক্তার কণা উপস্থিত ছিলেন।

সিলেট প্রেসক্লাব সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী বলেন, নিজাম উদ্দীন সালেহ একজন বহুমাত্রিক প্রতিভার অধিকারী ব্যক্তিত্ব। তাঁর রচিত গ্রন্থটি সিলেটের ষাটের দশকের ইতিহাস জানতে নতুন মাত্রা হিসেবে কাজ করবে। বুদ্ধিবৃত্তিক সাংবাদিকতায় সাংবাদিকতা অধ্যয়নের পাশাপাশি লেখালেখিতেও আগ্রহী হবেন এই গ্রন্থটি পাঠের মাধ্যমে। অতীত দিনের সিলেট গ্রন্থটি সকলের জন্য অনুপ্রেরণা হিসেবে দিক-নির্দেশনা দেবে।

আফতাব চৌধুরী বলেন, নিজাম উদ্দীন সালেহ বহুগুণে গুণান্বিত একজন সাদা মনের মানুষ। ‘অতীত দিনের সিলেট’ গ্রন্থের মাধ্যমে তিনি সিলেটের ইতিহাস তুলে ধরার প্রয়াস পেয়েছেন যা সত্যিই প্রশংসার দাবি রাখে।

এডভোকেট এমাদুল্লাহ শহীদুল ইসলাম বলেন, নিজাম উদ্দীন সালেহ তাঁর ‘অতীত দিনের সিলেট’ গ্রন্থের মাধ্যমে সিলেটের সাহিত্যিকদের একটি নতুন দিশা দিয়েছেন। ইতিহাস ঐতিহ্য জানার মাধ্যমে আমরা আমাদের দৈন্যতাকে কাটিয়ে উঠবো, যার অনুপ্রেরণা দিয়েছেন নিজাম উদ্দীন সালেহ।

ইকরামুল কবির বলেন, তাঁর রচিত গ্রন্থটি থেকে নতুন প্রজন্ম সিলেটের অতীত সম্পর্কে অনেক কিছুই জানতে পারবে। যা তার গ্রন্থের প্রতিটি বাক্যে মিশ্রিত হয়েছে।

অনুভ‚তি ব্যক্ত করে কবি নিজাম উদ্দীন সালেহ বলেন, কঠিন সংগ্রামের মধ্য দিয়েই আমার জীবন। মানুষের ভালোবাসার জন্য আমার লেখালেখি। কোনো কৃত্রিমতা ছাড়াই সিলেটের ষাটের দশকের ইতিহাসকে তুলে ধরতে চেষ্টা করেছি। আমার সুদীর্ঘ সাহিত্যজীবনে সকলের সহযোগিতা ও ভালোবাসা চাই।

সভাপতির বক্তব্যে সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মুকতাবিস-উন-নূর বলেন, অতীত দিনের সিলেট গ্রন্থটি সিলেটের একটি সময়কে ধারণ করবে। নতুন প্রজন্মও এই গ্রন্থটি থেকে অনেক কিছু জানতে পারবে।

 

সানডেসিলেটডটকম /১৫ ডিসেম্বর ২০২০

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ