প্রচ্ছদ

প্রধানমন্ত্রীর তহবিল থেকে গরীবদের মাঝে চেক বিতরণ

০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৭:৪৮

Sundaysylhet.com

সানডে সিলেট: সোমবার, ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ : জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট লুৎফুর রহমান বলেছেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা এ দেশের গরীব অসহায় মানুষের মুখে হাসি ফুটানোর জন্য রাজনীতি করেন। এই দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের অসহায়, দরিদ্র ও অসুস্থ মানুষের প্রতি সর্বদা আন্তরিক। অসুস্থ মানুষদের সুস্থ করতে চিকিৎসা বাবদ অনুদান প্রদান করা মহতি উদ্যোগ।

তিনি প্রধানমন্ত্রীকে আন্তরিক অভিনন্দন জানিয়ে এ ধারা অব্যাহত রাখার আহবান জানান। প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ তহবিল থেকে বরাদ্দকৃত অর্থ এবং সিলেট জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আমাতুজ জাহুরা রওশন জেবীন রুবার প্রচেষ্টায় প্রাপ্ত অর্থের অনুদানের চেক বিতরণ ৯ সেপ্টেম্বর সোমবার দুপুরে জেলা পরিষদ কার্যালয়ে চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

জেলা পরিষদের সদস্য মোহাম্মদ মতিউর রহমানের সঞ্চালনায় ও জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী প্রধান দেবজিত সিনহার সভাপতিত্বে আমাতুজ জাহুরা রওশন জেবীন রুবার স্বাগত বক্তব্যের মধ্য দিয়ে সূচিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক সাংসদ শফিকুর রহমান চৌধুরী, জেলা পরিষদের সদস্য মোহাম্মদ শাহনুর, জেলা পরিষদের সদস্য মো.নজরুল হোসেন, জেলা পরিষদের সদস্য নুরুল ইসলাম ইছন, জেলা পরিষদের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য সাজনা সুলতানা হক চৌধুরী, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সাংগঠনিক সম্পাদক কবিরুল ইসলাম কবির, নাছিমা বেগম, সিলেট বিভাগ যুব উন্নয়ন ফোরামের সভাপতি যুব সংগঠক আফিকুর রহমান আফিক, আহমেদুল হক চৌধুরী বেলাল, এম জেড আলম, যুবলীগ নেতা মিঠু মোহন দেব, হালিমা বেগম প্রমুখ।

চেক প্রাপ্তরা হলেন- সদর উপজেলা শফিক মিয়া ২০ হাজার টাকা, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার শরীফুর রহমান ২০ হাজার টাকা, সদর উপজেলার শামীম আহমদ ৩০ হাজার টাকা, দক্ষিন সুরমা উপজেলার মোছা.আফতারুন্নেছা ৩০ হাজার টাকা, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের পূর্ব চৌকি দেখীর তাহির উদ্দিন ৩০ হাজার টাকা, সদর উপজেলার টুকের বাজার ইউনিয়নের মাইয়ারচরের সাহানুর আহমদ ৫০ হাজার টাকা,গোলাপ গঞ্জ উপজেলার একেএম শামছ উদ্দিন ৫০ হাজার টাকা, সিটি কর্পোরেশনের কুয়ার পাড়ের মো.মোবারক হোসেন ৫০ হাজার টাকা, বিয়ানী বাজার উপজেলার নাছিমা বেগম ৫০ হাজার টাকা, সিলেট সদর উপজেলার মোহাম্মদ রোকনুজ্জামান চৌধুরী ১ লক্ষ টাকা, সদর উপজেলার হারুনুর রশীদ ২ লক্ষ টাকা।



সংবাদটি 40 বার পঠিত :::: সংবাদটি ভাল লাগলে লাইক বাটনে ক্লিক করুন
0Shares
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ