প্রচ্ছদ

সুনামগঞ্জে ড্রেজার মেশিন পুড়িয়ে ধ্বংস

২১ জুলাই ২০১৯, ১৫:৫০

Sundaysylhet.com

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: রবিবার, ২১ জুলাই ২০১৯ : সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার পৈন্দা মোহনপুর জয়নগর সড়কের পাশে সুরমা নদীর তীরে অবৈধভাবে ড্রেজার মেশিনে বালু ডাম্পিং করায় তিনটি ড্রেজার মেশিন আগুনে পুড়িয়ে দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শনিবার (২০ জুলাই) দুপুরে এ অভিযান চালায় ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় ব্যবসায়ীরা নৌকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়ায় তাদের গ্রেপ্তার বা জরিমানা করা সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আমিনুল এহসান।

দীর্ঘদিন ধরে ভুক্তভোগী এলাকাবাসী জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সদর উপজেলা ভূমি কর্মকর্তাকে পরিবেশ বিধ্বংসী এই কার্যক্রমের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ জানিয়ে আসছিলেন।

জানা যায়, মোহনপুর-পৈন্দা সড়কটি কয়েকটি গ্রামের চলাচলের একমাত্র সড়ক। এই সড়কটি বেড়িবাঁধ হিসেবেও কাজ করছে। কিন্তু গত ৫-৬ বছর ধরে কিছু ব্যবসায়ী ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে শ্রমিক ছাড়াই মেশিন দিয়ে বালু তোলে নদীর তীরে ডাম্পিং করছেন। এতে বালুর সঙ্গে পানি এসে নদী তীর ভেঙ্গে সুরমা নদীতে বিলীন হয়ে যাচ্ছে। এই এলাকার প্রায় দুই তৃতীয়াংশ নদীর তীর ইতোমধ্যে ড্রেজার মেশিনে বালু উত্তোলনের ফলে সুরমার গর্ভে তলিয়ে গেছে। যে কোন সময় বেড়িবাঁধ বা একমাত্র সড়কটিও নদী গর্ভে চলে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

এই অবস্থায় উদ্বিগ্ন এলাকাবাসী সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সদর উপজেলা ভূমি কর্মকর্তাকে ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ জানিয়েছিলেন।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ব্যবসায়ীদের ডেকে ড্রেজার মেশিনে বালু উত্তোলন না করার অনুরোধ জানিয়েছিলেন। কিন্তু স্থানীয় একজন জনপ্রতিনিধির সহযোগিতায় ব্যবসায়ীরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার আদেশকে অমান্য করে ড্রেজার মেশিনে বালু উত্তোলন অব্যাহত রেখেছে।

শনিবার এভাবে ড্রেজার মেশিন লাগিয়ে জয়নগর-মোহনপুর সড়কের পাশে অবৈধভাবে বালু ডাম্পিং করায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আমিনুল এহসান ঘটনাস্থলে গিয়ে তিনটি ড্রেজার মেশিন জব্দ করে আগুনে পুড়িয়ে দেন। এ সময় ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যায়।

ওই সময় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো. নূরুল হক খবর পেয়ে ছুটে এসে ব্যবসায়ীদের জরিমানা ও জিনিসপত্র জব্দ না করার অনুরোধ জানান। তাছাড়া ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যাওয়ায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইউপি চেয়ারম্যানকে ভবিষ্যতে ব্যবসায়ীরা এভাবে অবৈধভাবে বালু ডাম্পিং করলে তাদেরকে আইনের আওতায় নিতে সহায়তা করবেন এই আহ্বান জানালে চেয়ারম্যান রাজি হন।

এদিকে প্রশাসনের এই অভিযানকে আনুষ্ঠানিকভাবে অভিনন্দন জানিয়েছে মোহনপুর যুব কল্যাণ পরিষদ। এ ব্যাপারে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আমিনুল এহসান বলেন, তিনটি ড্রেজার মেশিন জব্দ করেছি। এই সময় চেয়ারম্যান সাহেব ছুটে এসে আগামীতে ব্যবসায়ীরা এমন অবৈধভাবে কাজ করলে প্রশাসনকে ব্যবস্থা নিতে সহযোগিতা করবেন এই আশ্বাস দিয়েছেন। তাছাড়া আমরা মেশিন জব্দ করার সময়ই নৌকা নিয়ে পালিয়ে গেছে ব্যবসায়ীরা।



সংবাদটি 32 বার পঠিত :::: সংবাদটি ভাল লাগলে লাইক বাটনে ক্লিক করুন
0Shares
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ